এক ঝাঁক ট্রাভেল গাইডদের হাতে এভারগ্রিন গাইড দেব আনন্দ এর জন্ম শতবার্ষিকী ক্যালেন্ডার প্রকাশ পেল

নিজস্ব প্রতিনিধি:কেউ সুশান্ত সিং রাজপুতকে গ্রুম করেছেন,প্রসেনজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে শিখিয়েছেন গাইড হওয়ার খুটিনাটি, আবার কেউ ফরাসি ভাষা আয়ত্ত করে দীর্ঘ বছর ধরে করছেন গাইডের কাজ,কেউ আবার রবীন্দ্র রচনার সাথে পরিচয় করিয়ে দিয়েছেন বিদেশি অতিথিদের, কেউ আবার টি টুয়েন্টি ম্যাচে খেলতে আসা বিদেশি খেলোয়াড়ের পরিবারকে কলকাতার আনাচে-কানাচে ঘুরিয়েছেন।এঁরা সবাই ট্রাভেল গাইড।


বলিউডের এভারগ্রিন হিরো দেব আনন্দ-এর জন্ম শতবার্ষিকী উপলক্ষে “দ্যা ড্রিমার্স মিউজিক পিআর এজেন্সি”,প্রকাশ করলো ২০২২ এর বিশেষ ক্যালেন্ডার “এভারগ্রিন দেব”।
বারো পাতার এই দেওয়াল ক্যালেন্ডার প্রকাশ করতে উপস্থিত হলেন শহরের এমনই এক ঝাঁক ট্রাভেল গাইড। ষাটের দশকে দেব আনন্দের অন্যতম ক্লাসিক ফিল্ম ছিল “গাইড”।সেই সময় ছবিটি তৈরি করতে খরচ হয়েছিল এক কোটি টাকা। সেই সূত্র ধরেই রিয়েল লাইফ গাইডদের উপস্থিতিতেই এই ক্যালেন্ডার প্রকাশ করার পরিকল্পনা করেন সংস্থার কর্ণধার সুদীপ্ত চন্দ।সমগ্র ক্যালেন্ডারটার পরিকল্পনা সুদীপ্তর নিজের।


ধরমদেব পিশোরিমল আনন্দ ওরফে দেব আনন্দ এর জন্ম ২৬ সেপ্টেম্বর,১৯২৩।শতবর্ষ ছোঁওয়ার এই বছরে ফিরে দেখা এই কিংবদন্তি স্টাইল আইকনকে ক্যালেন্ডারের পাতায়,পাতায়।এই ক্যালেন্ডারে আছে বেশ কিছু চমক -দেব আনন্দ অভিনীত প্রথম দিকের ছবির রেয়ার বুকলেট কভার, রেকর্ড কভার , ফিল্ম স্টিল, প্লেয়িং কার্ড এ দেব আনন্দের ছবির প্রচারের ছবি,দেশলাই বাক্সে ছবির প্রচারের নিদর্শন, নব কেতন প্রোডাকশনের কুড়ি বছর উপলক্ষে প্রকাশিত বিশেষ রেকর্ডে যেখানে শচীন দেব বর্মন নব কেতন প্রোডাকশনের গান নির্বাচন করেছিলেন তার প্রচ্ছদ তাতে দেব আনন্দ আর শচীনদেব বর্মনের লেখাও রয়েছে।ছবি প্রোমোশনে ব্যাবহৃত মাধ্যম হিসেবে তাস, দেশলাই বাক্স ছিল অন্যতম।আসলি নকলি ছবির প্রোমোশনে প্লেয়িং কার্ডের ব্যাবহার,গাইড লেখা দেশলাই বাক্স,ফিল্ম স্টিলে সুচিত্রা সেনের সাথে বম্বাই কা বাবু ছবির দৃশ্য, প্রেম পূজারী ছবির টিকিট, ভারতীয় ডাক বিভাগের প্রকাশিত দেব আনন্দ এর উপর ডাকটিকিট এই ক্যালেন্ডারে যেমন থাকছে আরো থাকছে বুকলেটে গাইড, জুয়েল থিফ, মহল, হরে রাম হরে কৃষ্ণ, ডার্লিং ডার্লিং, অফসর, মুনিমজি, ট্যাক্সি ড্রাইভার আরো অনেক ছবির উপস্থিতি যা বেশ নজর কাড়বে।জীবনে পেয়েছেন পদ্মবিভূষণ,দাদা সাহেব ফালকে সম্মান,অভিনয়ে জাতীয় পুরস্কার কালা পানি, গাইড ছবির জন্য।এই ক্যালেন্ডারে ছবি দিয়েছেন বিশ্বাস নেরুরকার, গোপী দে সরকার এবং সুদীপ্ত চন্দ।


উল্যেখযোগ্য ভাবে মানব নাগ, পার্থ ঘোষ,ঋত্বিক ঘোষ, প্রাণজিৎ বসু এর মতো রিয়েল লাইফ ট্যুরিজম গাইডদের হাতেই প্রকাশ পেল এভারগ্রিন গাইডকে নিয়ে এই বিশেষ ক্যালেন্ডার। সঙ্গীত পরিবেশন করেন অরিত্র মুখোপাধ্যায়( দিল কা ভঁওভার করে পুকার, ফুলো চা তারো কা),চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য( পান্না কি তমন্না, আভি না যাও ছোড় কর), রিক বিশ্বাস( অ্যায়সে মুঝে তুম না দেখো, খোয়া খোয়া চাঁদ ) ইত্যাদি। সমগ্র অনুষ্ঠানটা সঞ্চালন করেন বিশিষ্ট বাচিক শিল্পী দেবাশিস বসু।

সম্প্রতি এমনই এক অভিনব ক্যালেন্ডার প্রকাশ পেল আইসিসিআর এর স্পাইসেস এন্ড সসেস-এ।