তারকাখচিত ‘টিএম রেকর্ডস-সিজেএফবি পারফর্মেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২০’-এর অনুষ্ঠান

বর্ণাঢ্য আয়োজনে ঘোষণা করা হল ‘টিএম রেকর্ডস-সিজেএফবি পারফর্মেন্স অ্যাওয়ার্ড ২০২০’ এর বিজয়ীদের নাম। ২০২০ সালে পারফর্মিং মিডিয়াতে বিশেষ অবদান রাখার স্বীকৃতিস্বরূপ ২০টি ক্যাটাগরিতে এ অ্যাওয়ার্ড দেয়া হয়। বিজয়ীরা উপস্থিত থেকে এ পুরস্কার গ্রহণ করেন।

গত ২৪ ডিসেম্বর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রের ‘হল অব ফেম’ এ এক জাঁকজমকপূর্ণ অনুষ্ঠানের মাধ্যমে পুরস্কারপ্রাপ্তদের নাম ঘোষণা করা হয়। সেখানে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন ঢাকা উত্তর সিটি করপোরেশনের মাননীয় মেয়র আতিকুল ইসলাম। বিশেষ অতিথি ছিলেন সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কেএম খালিদ, বাংলাদেশে জাপানের রাষ্ট্রদূত ইতো নাওকি এবং গানবাংলা টিভি’র চেয়ারপারসন ফারজানা মুন্নী ও গানবাংলা টিভি’র সিইও কৌশিক হোসেন তাপস। অতিথিদের পাশাপাশি অনুষ্ঠানে বক্তব্য রাখেন সিজেএফবির প্রধান উপদেষ্টা এনাম সরকার, সভাপতি তামিম হাসান এবং সাধারণ সম্পাদক খালেদ আহমেদ।

বরাবরের মতোই সঙ্গীত, টেলিভিশন ও চলচ্চিত্র মাধ্যমের তারকাদের উপস্থিতিতে জমজমাট ছিল সিজেএফবি পারফর্মেন্স অ্যাওয়ার্ডের এবারের আসর। চিত্রনায়িকা বিদ্যা সিনহা মিম, নুসরাত ফারিয়া, শবনম বুবলি, টিভি তারকা মেহজাবীন চৌধুরী, কণ্ঠশিল্পী হামিন আহমেদ, বালাম, আরফিন রুমী, লুইপা, দোলা, ঐশীসহ তারকাদের মনোমুগ্ধকর পারফর্মেন্স ছিল অ্যাওয়ার্ড প্রদানের ফাঁকে ফাঁকে।

 

দেশের প্রধান জাতীয় দৈনিক, টেলিভিশন ও অনলাইন গণমাধ্যমের সাংস্কৃতিক সাংবাদিকদের সংগঠন কালচারাল জার্নালিস্টস ফোরাম অব বাংলাদেশ-সিজেএফবি। ১৯৯৯ সালে প্রতিষ্ঠার পর সাংবাদিকদের এই সংগঠনটি নানান সাংস্কৃতিক কার্যক্রমের মাধ্যমে দেশের সুস্থ সংস্কৃতিচর্চা গতিশীল রাখতে বিশেষ ভূমিকা রেখে চলেছে।

সঙ্গীতে বিশেষ অবদানের জন্য এবার ‘টিএম রেকর্ডস-সিজেএফবি আজীবন সন্মাননা’ পেয়েছেন শিল্পী রফিকুল আলম। সঙ্গীত অঙ্গণে অসাধারণ অবদান রাখায় বিশেষ সন্মাননা পেল গানবাংলা টিভির মিউজিক্যাল প্রোগ্রাম ‘উইন্ড অব চেঞ্জ’।

যারা অ্যাওয়ার্ড পেলেন-

সঙ্গীত বিভাগ

সেরা গায়ক: তানজীব সারোয়ার (ডুবে ডুবে)

সেরা গায়িকা: ঐশী (মেঘের বাড়ি)

সেরা সঙ্গীত পরিচালক: সাজিদ সরকার (ডুবে ডুবে)

সেরা গীতিকার: রাকিব হাসান রাহুল (সুন্দর মানুষ)

সেরা ব্যান্ড: এভয়েড রাফা

সেরা ফোক সিঙ্গার: পারভেজ (নক্ষত্র)

চলচ্চিত্র বিভাগ

সেরা অভিনেতা: শাকিব খান (শাহেনশাহ)

সেরা অভিনেত্রী: শবনম ইয়াসমিন বুবলি (বীর)

সেরা চলচ্চিত্র: বীর

টেলিভিশন বিভাগ

সেরা অভিনেতা: আফরান নিশো (গজদন্তিনী)

সেরা অভিনেত্রী: মেহজাবীন চৌধুরী (ফটোফ্রেম)

সেরা অভিনেতা (ক্রিটিক): চঞ্চল চৌধুরী (ছুটি)

সেরা উদীয়মান অভিনেতা: জিয়াউল হক পলাশ (ব্যচেলর পয়েন্ট)

সেরা উদীয়মান অভিনেত্রী: সানজানা সরকার রিয়া (ব্যচেলর পয়েন্ট)

সেরা নাটক (ধারাবাহিক): ব্যচেলর পয়েন্ট (ধ্রুব টিভি)

সেরা নাটক (একক): ‘আপা’ (ব্লাক এন্ড হোয়াইট)এবং ‘স্টেডিয়াম’ (ক্লাব ইলেভেন এন্টারটেনমেন্ট)

সেরা পরিচালক: কাজল আরেফিন অমি (ব্যচেলর পয়েন্ট)